সর্বশেষ সংবাদ

দেশের উন্নয়নের জন্য সর্বাত্নক চেষ্টা করুন – এমআইএসটি’র ১৫তম স্নাতক সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা, ০১ মার্চ ২০১৭ :- শিক্ষামন্ত্রী জনাব নুরম্নল ইসলাম নাহিদ, এমপি বলেছেন, ‘দেশপ্রেম, সততা ও আমত্মরিকতা দিয়ে দেশের উন্নয়নের জন্য সর্বাত্বক চেষ্টা করুন। শিক্ষামন্ত্রী আজ বুধবার (০১-০৩-২০১৭) ঢাকার মিরপুর সেনানিবাসে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (এমআইএসটি) বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ডিগ্রি অর্জনকারী ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে মেডেল ও সনদ বিতরণ করেন এবং তার প্রদত্ত ভাষণে একথা বলেন। এর আগে, এমআইএসটি’র কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মো: আবুল খায়ের, এনডিসি, পিইঞ্জি: স্বাগত বক্তব্য দেন এবং এমআইএসটি’র চলতি শিক্ষা কার্যক্রম সর্ম্পকে বিসত্মারিত বিবরণ তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ভিশন-২০২১ বাসত্মবায়নের লক্ষে – বাংলাদেশের সামগ্রিক কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধির ব্যাপারে এমআইএসটি’র গ্র্যাজুয়েটগণ নিরলস কাজ করে যাবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস। এ উপলক্ষ্যে তিনি আরও বলেন, ‘প্রযুক্তির দ্রুত সম্প্রসারণ বৈপস্নবিকভাবে বিশ্বায়নে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এনেছে। তোমাদের নিরলস প্রচেষ্টা এবং কর্মক্ষেত্রের অভূর্তপূর্ব সাফল্য ভবিষ্যত প্রজন্মের পাথেয় হয়ে থাকবে। সার্বক্ষণিক জ্ঞান চর্চার মাধ্যমে আত্মশুদ্ধির অভ্যাস গড়ে তোলার জন্য তিনি আহবান জানান।

বর্তমান সরকারের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার কার্যক্রমকে বেগবান করার জন্য শিক্ষামন্ত্রী দেশের সকল প্রযুক্তি ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে আমত্মরিক হওয়ার আহবান জানান। মন্ত্রী একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে ছাত্রছাত্রীদের দায়িত্বপূর্ণ নাগরিক হওয়ার বিষয়ে গুরম্নত্ব আরোপ করেন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা নতুন এক প্রজন্ম চাই, যারা হবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে উন্নত, জাতীয় মূল্যবোধ সম্পন্ন, দেশপ্রেম ও দেশের মানুষের প্রতি দায়িত্বশীল।’

শিক্ষামন্ত্রী সকল নবীন গ্রাজুয়েটদের আমত্মরিক অভিনন্দন জানান। একই সাথে শিক্ষার গুণগত মান বজায় রাখায় এমআইএসটি কর্তৃপক্ষের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এমআইএসটিকে একটি রোল মডেল উলেস্নখ করে তিনি এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদেরকে দক্ষ, বিবেকবান ও দায়িত্ব-কর্তব্যে সচেতন হিসেবে গড়ে তোলার আহবান জানান। মেধা ও মননের পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটিয়ে নতুন প্রজন্মের অগ্রসেনানী হবার আশাবাদ ব্যক্ত করেন ।

এবছর গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেন ৩০৫  জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ২৫৭ জন বেসামরিক এবং ৪৮ জন সামরিক শিক্ষার্থী রয়েছে। কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য এরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র শায়ন পান্ডে কে ‘ওসমানী মেমোরিয়াল গোল্ড মেডেল’ প্রদান করা হয়।

সনদ বিতরনী অনুষ্ঠানে স্থানীয় সংসদ সদস্য, নৌ বাহিনী প্রধান ও  ভারপ্রাপ্ত  বিমান বাহিনী প্রধান এবং সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাষ্টার জেনারেল, প্রতিরক্ষা সচিব, বিদেশী প্রতিরক্ষা উপদেষ্টাগণ, বিইউপি-এর উপাচার্য, উচ্চপদস্থ সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।