সর্বশেষ সংবাদ

বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর চলমান মহড়া প্রত্যক্ষ করলেন বিমান বাহিনী প্রধান

ঢাকা, ০৭ মার্চ:- বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল আবু এসরার,বিবিপি,এনডিসি,এসিএসসি আজ মঙ্গলবার (০৭-৩-২০১৭) বিএএফ ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুতে উপস্থিত থেকে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর চলমান বার্ষিক শীতকালীন মহড়া ‘উইনটেক্স-২০১৭’ প্রত্যক্ষ করেন। এসময় বিমান বাহিনীর উধ্বর্তন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

পরে বিমান বাহিনী প্রধান চট্টগ্রামে ঘাঁটি জহুরুল হক ও বরিশাল গমন করেন এবং সরেজমিনে মহড়া প্রত্যক্ষ করেন।

পাঁচ দিনব্যাপী এ মহড়া আগামীকাল বুধবার (০৮-৩-২০১৭) সমাপ্ত হবে। গত ৪ মার্চ বিমান বাহিনীর সকল ঘাঁটি ও স্থাপনায় ‘উইনটেক্স-২০১৭’ মহড়া শুরু হয়।

এ মহড়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর বিদ্যমান সমরাস্ত্রের কার্যকারী যুদ্ধ সক্ষমতা মূল্যায়ন করে এর দুর্বল দিকসমূহ নির্ণয় করতঃ গুরুত্বপূর্ণ সুপারিশ করা হয়। এ সকল গুরুত্বপূর্ণ সুপারিশ ভবিষ্যতে আরো উন্নত প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে এবং বিমান বাহিনীর সকল যুদ্ধাস্ত্র ও জনবল যুদ্ধ প্রস্তুতি অনুশীলনের মাধ্যমে বাংলাদেশের আকাশ প্রতিরক্ষা উন্নয়নে বিশেষ সহায়ক হবে। মহড়াটি তিনটি ধাপে সম্পন্ন হলো- লজিষ্টিক এক্সারসাইজ (LOGEX), কমিউনিকেশন এক্সারসাইজ (COMEX) ও লাইভ এক্সারসাইজ (LIVEX) । মহড়ার উল্লেখযোগ্য অংশ হিসেবে বিমান বাহিনীর বৈমানিকগণ আকাশ যুদ্ধের বিভিন্ন প্রকার রণকৌশল সহ যুদ্ধ বিমানের মাধ্যমে আক্রমণ, ইন্টারসেপশন, আকাশ থেকে শত্রু কবলিত স্থান পর্যবেক্ষণ, রশদ সরবরাহ, সৈন্য ও যুদ্ধাস্ত্র স্থানান্তর, স্পেশাল অপারেশন, অনুসন্ধান ও উদ্ধার মিশন সহ সকল ধরনের কলাকৌশলের অনুশীলন করেন। আকাশ যুদ্ধ ছাড়াও ভূমিতে ঘাঁটি প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংশ্লিষ্ট সকল অনুশীলন করা হয়।

এ মহড়ায় বিমান বাহিনীর সকল প্রকার যুদ্ধ বিমান, পরিবহন বিমান, হেলিকপ্টার ও র‌্যাডার স্কোয়াড্রন ও মিসাইল ইউনিটসহ সকল যুদ্ধাস্ত্র ও সদস্য অংশগ্রহণ করে। মহড়াটিকে আরও ফলপ্রসু এবং বাস্তবতা প্রদানের জন্য ও অন্যান্য বাহিনীর সাথে প্রয়োজনীয় সমন্বয় কল্পে স্বল্প পরিসরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নৌ বাহিনী, সিভিল ডিফেন্স এবং বিএনসিসি (এয়ার উইং) এ মহড়ায় অংশগ্রহণ করে।