সর্বশেষ সংবাদ

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী একাডেমিতে শীতকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত

যশোর, ৩১ ডিসেম্বরঃ- বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ৭৪তম বাফা কোর্স ও ডিরেক্ট এন্ট্রি ২০১৭ কোর্সের কমিশন প্রাপ্তি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ-২০১৭ রবিবার (৩১-১২-২০১৭) যশোরে অবস্থিত বিমান বাহিনী একাডেমি প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হয়।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ এবং ক্যাডেটদের মাঝে পদক, সনদপত্র এবং ফ্লাইং ব্যাজ বিতরণ করেন।

রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ ২০১৭-এ ৭৪তম বাফা কোসের্র ৬৮ জন ফ্লাইট ক্যাডেট এবং ডিরেক্ট এন্ট্রি ২০১৭ কোর্সের ১১ জন সহ মোট ৭৯ জন কমিশন লাভ করেছেন। এদের মধ্যে ১৩ জন মহিলা ক্যাডেটও কমিশন লাভ করেছেন। ফ্লাইট ক্যাডেট মির্জা মোঃ জুবায়ের হোসেন ৭৪তম ফ্লাইট ক্যাডেট কোর্সে সেরা চৌকস কৃতিত্বের জন্য “সোর্ড অব অনার” এবং ফ্লাইট ক্যাডেট শাহরিয়ার তানজীম জেনারেল সার্ভিস প্রশিক্ষণে কৃতিত্বের জন্য “কমান্ড্যান্টস্ ট্রফি” লাভ করেন। উড্ডয়ন প্রশিক্ষণে সেরা কৃতিত্বের জন্য ফ্লাইট ক্যাডেট মির্জা মোঃ জুবায়ের হোসেন “বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান ট্রফি” লাভ করেন। গ্রাউন্ড ব্রাঞ্চ- এ সেরা কৃতিত্বের জন্য ফ্লাইট ক্যাডেট এফ এম শহীদুল ইসলাম সুজন “বিমান বাহিনী প্রধান” এর ট্রফি লাভ করেন। এছাড়াও সার্বিকভাবে বিমান বাহিনী একাডেমির ০১ নং স্কোয়াড্রন চ্যাম্পিয়ন বিবেচিত হয়ে একাডেমি পতাকা লাভ করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাঁর ভাষণে বলেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় যে কোন জাতির জন্য একটি পেশাদার ও আধুনিক বিমান বাহিনী অপরিহার্য। আর সে লক্ষ্যেই, বিমান বাহিনীর সার্বিক উন্নয়নে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া তিনি সাম্প্রতিককালে বিমান বাহিনীর বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের উল্লেখ করেন। মানবসম্পদসহ প্রতিটি মূল্যবান সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার এবং ব্যবস্থাপনার অর্পিত দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে ভবিষ্যত নেতৃত্বের যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে নিজেদের গড়ে তোলার জন্য তিনি কমিশনপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের আহ্বান জানান । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং বিমান বাহিনীর উন্নয়নে তাঁর অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সাথে উল্লেখ করেন।

ফ্লাইট ক্যাডেট একাডেমি আন্ডার অফিসার আহম্মদ মুসা আনুষ্ঠানিক কুচকাওয়াজের নেতৃত্ব প্রদান করেন। কুচকাওয়াজ শেষে বিমান বাহিনী একাডেমির বিভিন্ন প্রকার বিমানের আকর্ষণীয় ফ্লাইপাস্ট অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিমান বাহিনী একাডেমির প্যারেড গ্রাউন্ডে এসে পৌঁছালে বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল আবু এসরার, বিবিপি, এনডিসি, এসিএসসি এবং বিমান বাহিনী একাডেমির কমান্ড্যান্ট এয়ার কমডোর এ এস এম ফখরুল ইসলাম, জিইউপি, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি তাঁকে স্বাগত জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, সেনা ও নৌবাহিনী প্রধানগণ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, বৈদেশিক মিশনের কূটনীতিকগণ, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিবগণ, উচ্চ পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ, অবসরপ্রাপ্ত বিমান বাহিনী প্রধানগণ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং সদ্য কমিশনপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের অভিভাবকবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।