সর্বশেষ সংবাদ

বিমান বাহিনী প্রধান কর্তৃক খেতাব প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারীদের সম্বর্ধনা

ঢাকা, ২২ নভেম্বরঃ- সশস্ত্র বাহিনী দিবস ২০১৭ উপলক্ষে বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল আবু এসরার নগরীর তেজগাঁওস্থ বিএএফ ফ্যালকন হলে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারীদের সম্বর্ধনা প্রদান করেন।
এছাড়া এসময় মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশ বিমান বাহিনী কর্তৃক পরিচালিত এক গুরুত্বপূর্ণ অভিযান ‘‘কিলোফ্লাইট’’ এর অসামরিক বৈমানিকদেরকেও সম্বর্ধনা প্রদান করেন।
বিমান বাহিনী প্রধান খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন ও উপহার সামগ্রী প্রদান করেন। মোট ২৮ জন খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারীদের সম্বর্ধনা প্রদান করা হয়। যাদেরকে বিমান বাহিনী প্রধান সম্বর্ধনা দেন তাদের মধ্যে আছেন খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল এ কে খন্দকার, বীর উত্তম (অবঃ); সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল সদরুদ্দিন, বীর প্রতীক (অবঃ); সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল সুলতান মাহমুদ, বীর উত্তম (অবঃ); গ্রুপ ক্যাপ্টেন সামছুল আলম, বীর উত্তম(অবঃ); স্কোয়াড্রন লীডার বদরুল আলম, বীর উত্তম (অবঃ) প্রমুখ। তাছাড়া, এসময় বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট এম মতিউর রহমানের স্ত্রী মিলি রহমানকেও সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। অন্য দিকে ‘‘কিলো ফ্লাইট’’ অভিযানের বেসামরিক মুক্তিযোদ্ধা (পিআইএ-র তৎকালীন পাইলট) ক্যাপ্টেন আকরাম আহমেদ, বীর উত্তম; ক্যাপ্টেন কাজী আলমগীর সাত্তার, বীর প্রতীক ও ক্যাপ্টেন সাহাবুদ্দিন আহমেদ, বীর উত্তম-কেও সম্বর্ধনা দেওয়া হয়।
অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনী প্রধান তার সংক্ষিপ্ত ভাষণে মহান মুক্তিযুদ্ধে বিমান বাহিনীর খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের অবদানের কথা গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, যাদের ত্যাগের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি তাদের কথা জাতি কখনো ভুলবেনা।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিমান সদরের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার ও উর্ধ্বতন বিএএফ অফিসাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।