সর্বশেষ সংবাদ

বুয়েটের অধ্যাপক ড. সৈয়দা সুলতানা রাজিয়া রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ সংস্থার বৈজ্ঞানিক পরামর্শক বোর্ডের সদস্য নিযুক্ত


ঢাকা , ২৪ অক্টোবর: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিক্যাল কৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দা সুলতানা রাজিয়া দি হেগস্থ আন্তর্জাতিক রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ সংস্থার (Organization for the Prohibition of Chemical Weapons (OPCW/ওপিসিডব্লিউ) বৈজ্ঞানিক পরামর্শক বোর্ডের সদস্য নিযুক্ত হয়েছেন। ওপিসিডব্লিউ’র মহাপরিচালক জনাব আহমেট উজুমচু সংস্থাটির চলমান ৮৬তম নির্বাহী পরিষদের অধিবেশনে এ নিয়োগের ঘোষনা দেন । তিন বছর মেয়াদী এ নিয়োগ আগামী ১ জানুয়ারী ২০১৮ থেকে কার্যকর হবে।
১৯৯৮ সালে ওপিসিডব্লিউ’র যাত্রা শুরুর পর ডঃ সৈয়দা সুলতানা রাজিয়া প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে বৈজ্ঞানিক পরামর্শক বোর্ডের সদস্য নিযুক্ত হলেন। ড. রাজিয়া’র এ নিয়োগ রাসায়নিক অস্ত্রমুক্ত পৃথিবী লক্ষ্য অর্জনে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ অবদানের প্রতি ওপিসিডব্লিউ এবং বিশেষ করে ওপিসিডব্লিউ’র মহাপরিচালকের গভীর সন্তোষেরই বহিঃপ্রকাশ।
রাসায়নিক অস্ত্র কনভেনশনে বাংলাদেশ মূল স্বাক্ষরকারী দেশ। ২০০২-২০০৪ মেয়াদে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ওপিসিডব্লিউ’র নির্বাহী পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিল এবং পুনরায় ২০১৬-২০১৮ মেয়াদের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। সংস্থাটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল ২০১৭-২০১৮ মেয়াদের জন্য নির্বাহী পরিষদের চেয়ারপার্সন নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সদস্য রাষ্ট্র সমূহের অধিবেশনের মনোনয়ন কমিটির চেয়ার এবং ২০১৭ সালে সদস্য রাষ্ট্র সমূহের অধিবেশনে একজন ভাইস- চেয়ারপার্সন হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে।
বৈজ্ঞানিক পরামর্শক বোর্ড ওপিসিডব্লিউ’র একটি বিশেষায়িত অঙ্গ যা সংস্থাটির মহাপরিচালককে রাসায়নিক অস্ত্র কনভেনশন সংক্রান্ত বিশেষায়িত বৈজ্ঞানিক এবং প্রযুক্তিগত পরামর্শ প্রদান করে থাকে। ওপিসিডব্লিউ’র সদস্য রাষ্ট্র সমূহ থেকে ২৫ জন সদস্য নিয়ে বৈজ্ঞানিক পরামর্শক বোর্ড গঠিত।