সর্বশেষ সংবাদ

ভূমিকম্প পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার উপর মাঠ পর্যায়ে যৌথ অনুশীলন অনুষ্ঠিত

ঢাকা ০৪ অক্টোবর ২০১৬ : দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ এবং United States Army Pacific (USARPAC) এর যৌথ উদ্যোগে চলমান ভূমিকম্প পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রস্তুতির উপর মাঠ পর্যায়ের অনুশীলন আজ মঙ্গলবার (০৪-১০-২০১৬) ঢাকার গেন্ডারিয়ার ধুপখোলা মাঠ ও উওরা সেক্টর-১৮ এর মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।

মাঠ পর্যাযের অনুশীলনে একটি কাল্পনিক ভূমিকম্প পরিস্থিতি কল্পনা করে (বাংলাদেশে ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে) এর পরবর্তী কার্যক্রম যেমন সার্চ এন্ড রেসকিউ, মেডিকেল ইভাকোয়েশন, লজিষ্টিক মুভমেন্ট, বিআইডব্লিউটিসি ও বিআইডব্লিউটিএ এর ওয়াটার বাসের মাধ্যমে ঢাকার চতুর্দিকে নৌ সার্কুলার রোড-এ লজিষ্টিক মুভমেন্টসহ এ্যারোমেটিকেল ইভাকোয়েশন, ডেব্রিজ ম্যানেজমেন্ট, ডেডবডি ম্যানেজমেন্ট, ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন, ত্রাণ সহায়তা ইত্যাদির অনুশীলন করা হয়।
এছাড়া, মাঠ পর্যাযের অনুশীলন সমন্বয়ের জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, বাংলাদেশ বিমানবাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধু, ঢাকা সিটি কর্পোরেশন (উত্তর), ঢাকা সিটি কর্পোরেশন (দক্ষিণ), পোস্তগোলা ক্যান্টনমেন্ট, আশুলিয়া ল্যান্ডিং ষ্টেশন প্রভৃতি স্থানে একটি করে সেল কাজ করে ।

এ অনুশীলনে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ ছাড়াও বিভিন্ন দেশি বিদেশী ১০০টি সংস্থার প্রায় ১০০০ প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেছে। এতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, চীন, মায়ানমার, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা, নেপাল এবং ভারতের প্রায় ৪৫ জন প্রতিনিধিও অংশ নিয়েছে । এই যৌথ অনুশীলনের মাধ্যমে ভুমিকম্প দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সক্ষমতা বৃদ্ধি, অনুশীলনে অংশগ্রহণকারী সকল সহযোগী সংস্থার কর্মপদ্ধতির সমন্বয়, পারস্পরিক ধারণা বৃদ্ধি এবং চিকিৎসা সহায়তাসহ বিভিন্ন সংস্থার কার্যকরিতা যাচাই করা সম্ভব হবে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য একটি জাতীয় ডাটাবেজ ও ওয়েব পোর্টাল তৈরীর কাজ চলছে। এই অনুশীলনে এটিও ব্যবহার করা হচ্ছে।

এই অনুশীলনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সেনা, নৌ এবং বিমান বাহিনীসহ ফায়ার সার্ভিস এবং সিভিল ডিফেন্স, ডিজিএমএস, পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি, আনসার ভিডিপি, বিএনসিসি, বাংলাদেশ স্কাউট, ঢাকা সিটি করপোরেশন (উত্তর ও দক্ষিণ), তিতাস গ্যাস কোম্পানী লিমিটেড, ওয়াটার সাপ্লাই এন্ড সুয়ারেজ অথরিটি, গণপূর্ত অধিদপ্তর, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানী লিমিটেড, ঢাকা পাওয়ার ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেড, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর, বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া, আইএসপিআর এবং দুর্যোগ মোকাবেলার সাথে সম্পর্কিত সরকারি/বেসরকারি মোট প্রায় ১০০টি সংস্থাকে সম্পৃক্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, Disaster Response Exercise and Exchange (DREE)- 2016  সেমাবার (২৬-৯-২০১৬) ঢাকা সেনানিবাসস্থ আর্মি গল্ফ ক্লাবে শুরু হয়। এই অনুশীলন দুই পর্বে ২৬-২৮ সেপ্টেম্বর এবং ০৩-০৬ অক্টোবর ২০১৬ তারিখ পর্যন্ত ঢাকার পাশাপাশি চট্টগ্রাম ও সিলেটে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আগামী ০৬ অক্টোবর অনুশীলনের সমাপনী অনুষ্ঠান আর্মি গল্ফ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হবে।