সর্বশেষ সংবাদ

ভূমিকম্প পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার উপর যৌথ অনুশীলন সমাপ্ত

ঢাকা ০৬ অক্টোবর ২০১৬ : দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ এবং ইউনাইটেড স্টেটস আর্মি প্যাসিফিক (ইউএসএআরপিএসি) এর যৌথ উদ্যোগে ভূমিকম্প পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রস্তুতির উপর অনুশীলন ‘ডিজাস্টার রেসপন্স এক্সারসাইজ এন্ড এক্সচেঞ্জ (DREE)-২০১৬’ এর সমাপনী অনুষ্ঠান আজ বৃহস্পতিবার (০৬-১০-২০১৬) ঢাকাস্থ আর্মি গল্ফ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, বীরবিক্রম, এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন (উওর)এর মেয়র আনিসুল হক, সশস্ত্রবাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল ষ্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ মাহফুজুর রহমান (Lieutenant General Md Mahfuzur Rahman) যুক্তরাষ্ট্রের আর্মি ন্যাশনাল গার্ডের ডেপুটি কমান্ডিং জেনারেল ব্রায়েন ই সানথেইমার (Bryan E. Sunteimer) এবং উর্ধ্বতন সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ অনুশীলনে অংশগ্রহণকারী সংস্থাসমূহের মধ্যে ছিল সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ, স্বরাষ্ট্র, যোগাযোগ প্রভৃতি মন্ত্রণালয়সমূহ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, সিভিল এভিয়েশন, সিটি কর্পোরেশন (উত্তর ও দক্ষিণ) ইত্যাদি। এছাড়াও ইউএস আর্মি প্যাসিফিক, যুক্তরাষ্টের আর্ন্তজাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি) বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, কেয়ার বাংলাদেশ, ডব্লিউএফপি, ডব্লিউএইচও, সিডিএমপি এবং বিবিসি মিডিয়া একশন। উক্ত অনুশীলনের মূল প্রতিপাদ্য ছিল বাংলাদেশে ভূমিকম্প দুর্যোগ মোকাবেলায় সকল সংস্থার কার্যক্রম অনুশীলন ও যথার্থতা যাচাই যা সাবজেক্ট ম্যাটার এক্সপার্ট এক্সচেঞ্জ (এসএমইই), টেবিল টপ এক্সারসাইজ (টিটিএক্স) ও ফিল্ড ট্রেনিং এক্সারসাইজ (এফটিএক্স) এর মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়েছে।

এ অনুশীলনে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ ছাড়াও বিভিন্ন দেশি বিদেশী ১০০টি সংস্থার প্রায় ১০০০ প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেছে। এতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, চীন, মায়ানমার, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা, নেপাল এবং ভারতের প্রায় ৪৫ জন প্রতিনিধিও অংশ নিয়েছে । দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য একটি জাতীয় ডাটাবেজ ও ওয়েব পোর্টাল তৈরীর কাজ চলছে। এই অনুশীলনে এটিও ব্যবহার করা হয়েছে।
এই যৌথ অনুশীলনের উদ্দেশ্যগুলো হচ্ছে- অনুশীলনে অংশগ্রহণকারী সকল সংস্থার বাংলাদেশে ভূমিকম্প দুর্যোগ মোকাবেলায় সাড়া দানের প্রস্তুতি ও সক্ষমতা যাচাই, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ ও বাহিনী সমূহের ঢাকা শহরের জন্য প্রস্তুতকৃত ‘‘আর্থকোয়েক কন্টিনজেন্সি প্লান’’ এর মাধ্যমে সৃজনকৃত বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/সংস্থা/বাহিনী সমূহের পরিকল্পনার যথার্থতা ও কার্যকারিতা যাচাই, দুর্যোগ কালীন সময়ে জাতীয় পর্যায়ে মিডিয়া ব্যবস্থাপনাসহ মিডিয়ার ভূমিকা যাচাই, দুর্যোগ পরবর্তী বৈদেশিক সহায়তা গ্রহণ পদ্ধতি এবং এর যথার্থতা যাচাই, স্ট্যান্ডিং অর্ডার অন ডিজাস্টার (এসওডি) এর মাধ্যমে প্রদানকৃত দায়িত্ব ও কর্তব্যের অনুশীলন ও পরিমার্জনের পরামর্শ প্রদান, মাল্টি-ন্যাশনাল কোঅর্ডিনেশন সেন্টার (এমএনসিসি) এবং জয়েন্ট টাস্ক ফোর্স (জেটিএফ) এর ধারণা প্রদান এবং অনুশীলন, সরকারি/বেসরকারি এবং সামরিক/বেসামরিক সংস্থা সমূহের মধ্যে সহযোগীতা ও যোগাযোগ বৃদ্ধি করা, উদ্ধার অভিযানে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি ও উদ্ধার কর্মীদের অনুশীলন ও কার্যকারিতা যাচাই এবং দুর্যোগকালীন সময়ে নীতি নির্ধারক, প্রথম সাড়াদানকারী ও জনসাধারণের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন সাধন ও অনুশীলন।

উল্লেখ্য, ৪ ও ৫ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মাঠ পর্যায়ের অনুশীলন ঢাকার গেন্ডারিয়ার ধুপখোলা মাঠ ও উওরা সেক্টর-১৮এ অনুষ্ঠিত হয়। ২০১০ সালে শুরু হওয়া ড্রি এ নিয়ে ৭ম বারের মত অনুষ্ঠিত হয়েছে।