সর্বশেষ সংবাদ

ভূমি ধসে পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর উদ্ধার কার্যক্রম ও ত্রাণ সহায়তা।

ঢাকা, ১৫ জুন ঃ পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি ধস পরবর্তী উদ্ধার কার্যক্রম ও ত্রাণ বিতরণে সেনাবাহিনী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

রাঙামাটি ঃ মানিকছড়ির উদ্ধার অভিযান ইতোমধ্যেই সমাপ্ত হয়েছে। গত ৩ দিন ধরে নিখোঁজ সৈনিক আজিজের মৃতদেহ রাস্তা হতে ৫০ ফিট গভীর হতে উদ্ধার করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর তৎপরতায় এ পর্যন্ত ১৭টি পয়েন্ট হতে ভূমিধসের মাটি ও গাছপালা সরিয়ে ৫ কি.মি. রাস্তা যান চলাচলের জন্য উপযোগী করা হয়েছে। রাঙামাটি জোনে ১৩টি শেল্টার সেন্টার খোলা হয়েছে এবং অদ্যবধি ১২১৮ জন সেখানে আশ্রয় নিয়েছে। এসকল শেল্টার সেন্টারে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে আনুমানিক ৪০০ জনকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। রাঙামাটি জোন সদরের পক্ষ হতে আজ ৫টি স্থানে ৫০০ শতাধিক পাহাড়ি ও বাঙালির মধ্যে বিশুদ্ধ খাবার পানি, খিচুড়ী ও শুকনা খাবার বিতরন করা হয়েছে। আগামী কালও উদ্ধার অভিযান চলমান থাকবে। একই সাথে সেনাবাহিনী তাদের ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রাখবে।

বান্দরবন ঃ চিম্বুক থেকে ৪.১ কিঃ মিঃ রাস্তা যান চলাচলের উপযুক্ত করা হয়েছে। বর্তমানে ৫০ মিটারের একটি বড় পাহাড়ী ধস সরানোর কার্যক্রম চলছে। বান্দরবান জোনের পক্ষ থেকে ৫টি স্থানে ভূমিধসে ক্ষতিগ্রস্থ পাহাড়ী ও বাঙালির মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। বিভিন্ন বয়সী ২৩৮জন পাহাড়ী ও বাঙালিদের মাঝে কাপড় বিতরণ করা হয়েছে।