সর্বশেষ সংবাদ

রাঙ্গামাটিতে সেনাবাহিনীর অভিযানে মেশিনগান ও কার্বাইনসহ শীর্ষ অস্ত্র ব্যবসায়ী ও চোরাকারবারী আটক

ঢাকা, ২২ ডিসেম্বর ২০১৮ ঃ পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের সশস্ত্র সংগঠনগুলোর নিকট আঞ্চলিক শীর্ষ অস্ত্র ব্যবসায়ী ও সরবরাহকারীদের গ্রেফতারের জন্য রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার রাঙ্গামাটি-কাপ্তাই সড়ক সংলগ্ন বিলাইছড়ি পাড়ায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আজ শনিবার (২২/১২/২০১৮) ভোর ৫টা ৪৫ মিনিটে সেনাবাহিনী একটি বিশেষ অভিযান চালায়। অভিযানে পার্বত্য চট্টগ্রামের শীর্ষ অস্ত্র ব্যবসায়ী ও জনসংহতি সমিতির সাবেক সশস্ত্র গ্রুপ কমান্ডার বিশ¡ জ্যোতি চাকমা ওরফে বাগান বাবু ওরফে কিংকর ওরফে সিদং (৫০), তার অন্যতম সহযোগী বিনয় ত্রিপুরা ওরফে সঞ্জয় ওরফে বাখর (৪৩) এবং উল্যা প্রু মার্মা (৪৭) কে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযান চালিয়ে ০৩ জনকে গ্রেফতার করা হলেও নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে আরও কয়েকজন দুষ্কৃতিকারী পালিয়ে যায়। গ্রেফতার কৃতদের কাছ থেকে একটি ৭.৬২ মিঃমিঃ মেশিনগান ও একটি ৯ মিঃমিঃ সাব মেশিন কার্বাইন উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি জেলায় অব¯হানরত আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফ (মূল) ও জেএসএস (মূল) দল এর সশস্ত্র শাখাসমূহকে অস্ত্র সরবরাহ করে আসছিল বলে জানা যায়। অতি সম্প্রতি তারা ইউপিডিএফ (মূল) দলকে ০৬টি একে-৪৭ সরবরাহ করেছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়। নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে তথ্য ছিল যে, জাতীয় নির্বাচনের পূর্বে এই চক্রটি কোন একটি আঞ্চলিক দলেরসশস্ত্র শাখাকে একটি বড় অস্ত্রের চালান সরবরাহ করার পরিকল্পনা ছিল। গ্রেফতারকৃত বিশ¡ জ্যোতি চাকমা ওরফে কিংকর অপর একটি মামলার ১০ বছরের সাজা প্রাপ্ত আসামী এবং আন্তঃরাষ্ট্রীয় অস্ত্র ব্যবসা ও চোরাচালানী সিন্ডিকেটের অন্যতম শীর্ষ¯হানীয় ব্যক্তি। গ্রেফতারকৃত অস্ত্র সরবরাহকারীদের হাতেনাতে ধরার জন্য নিরাপত্তা বাহিনী দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করে আসছিল। এই অভিযান পার্বত্য চট্টগ্রামের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, অস্ত্র ব্যবসায়ী ও আঞ্চলিক সশস্ত্র সংগঠন গুলোর বিরুদ্ধে একটি সফল অভিযান। পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি বজায় রাখতে নিরাপত্তা বাহিনীর এ রকম অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Advertisements