বুধবার, ৩রা জুন ২০২০ ইং; ২০শে জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ; ১০ই শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
Home হোম সেনাবাহিনী প্রধানের নেপাল সফরের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নেপালের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের নতুন অগ্রগতি
Fhoto

সেনাবাহিনী প্রধানের নেপাল সফরের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নেপালের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের নতুন অগ্রগতি

155
0

ঢাকা, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ (বুধবার)ঃ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, এসবিপি, বিএসপি, বিজিবিএম, পিবিজিএম, বিজিবিএমএস, পিএসসি, জি সরকারি সফরে গত ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ হতে ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ পর্যন্ত নেপাল সফর করেন।
সফরকালে সেনাবাহিনী প্রধান নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারী (Bidhya Devi Bhandari),প্রধানমন্ত্রী খড়গ প্রসাদ শর্মা অলি (KP Sharma Oli), প্রতিরক্ষামন্ত্রী ঈশ¡র পোখারেল (Ishwor Pokharel) এবং সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল পুর্না চন্দ্র থাপা (General Purna Chandra Thapa)এর সাথে পৃথক পৃথকভাবে সাক্ষাৎ করেন।
সাক্ষাৎকালে সেনাবাহিনী প্রধান নেপালের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বার্তা পৌঁছে দেন। সেনাবাহিনী প্রধান ১৯৭২ সালে বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে রাজনৈতিক স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য নেপাল সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। একই সাথে তিনি স্বাধীনতা পরবর্তী খাদ্য সংকট মোকাবেলায় নেপালের সহায়তার কথা অত্যন্ত শ্রদ্ধার সাথে স¥রণ করেন। নেপাল সরকারের নেতৃবৃন্দও বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশ সরকারের সহায়তা বিশেষ করে ২০১৫ সালে নেপালে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ ভূমিকম্পের সময় বাংলাদেশ সরকারের সাহায্যের কথা উল্লেখ করেন। সেনাবাহিনী প্রধান বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পররাষ্ট্র নীতি সম্পর্কে আলোকপাতসহ বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী মুজিব বর্ষ উদ্যাপন এর বিষয়টিও তুলে ধরেন। তিনি আরো উল্লেখ করেন যে,সম্প্রতি বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেপাল সফর দু’দেশের মধ্যকার সম্পর্ককে আরও নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে। নেপালের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও উভয় দেশের উচ্চ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের এই দ্বিপাক্ষিক সফরের গুরুত্ব তুলে ধরেন। উভয় দেশের নেতৃবৃন্দ এই দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরো নতুন ভাবে এগিয়ে নিতে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। নেপালের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের সাথে দ্বিপাক্ষিক যোগাযোগ, হাইড্রোপাওয়ার এবং দুই দেশের জনগণের মধ্যে বন্ধনকে দৃঢ় করার ব্যাপারে গুরুত্ব আরোপ করেন। তারা বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়নের ব্যাপক প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের এই অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। সাক্ষাৎকালে উভয় দেশের নেতৃবৃন্দ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন সহযোগিতার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচনের ব্যাপারে আশাবাদ প্রকাশ করেন।
নেপালের সেনাপ্রধানের সাথে সাক্ষাৎকালে উভয় দেশের সেনাবাহিনী প্রধান দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সামরিক সহযোগিতাকে আরো এগিয়ে নিতে যৌথ সামরিক প্রশিক্ষণ, প্রশিক্ষণ বিনিময়, বিশেষজ্ঞ প্রশিক্ষক বিনিময়সহ অন্যান্য সহযোগিতামূলক বিষয়গুলোকে এগিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে একমত পোষণ করেন। উভয় সেনাপ্রধানই দুর্যোগ মোকাবেলা, সন্ত্রাস দমন, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন এবং ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিসহ উভয় দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যকার সাধারণ ও পারস্পরিক সহযোগিতামূলক দিকগুলা চিহ্নিত করেন। নিয়মিতভাবে উভয় দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে জুনিয়র ও মিড লেভেল অফিসারদের প্রশিক্ষণ বিনিময়, স্টাফ টক এবং উচ্চ পর্যায়ের সামরিক নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা সফর চালু রাখার ব্যাপারে দুই দেশের সেনাপ্রধান একমত পোষণ করেন।
উল্লেখ্য, সেনাবাহিনী প্রধানের সফরকালে নেপালের নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশী সংস্কৃতি এবং ভাষার প্রতি তাদের গভীর মমত্ববোধের পরিচয় দেন। এমনকি অভিবাদন জানানোসহ কিছু কিছু ক্ষেত্রে তারা বাংলাতেও কথা বার্তা বলেন। নেপালের নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধানের এই সফরকে বিশেষভাবে সাধুবাদ জানান এবং উভয় দেশের সেনাবাহিনী তথা দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সহযোগিতার জন্য সেনাবাহিনী প্রধানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এই সফরের মধ্য দিয়ে উভয় দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও এক নতুন উচ্চতায় উপনীত হবে বলে প্রতীয়মান হয়।

(155)

Close